1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. banglaronusandhantv@gmail.com : বাংলার অনুসন্ধান : বাংলার অনুসন্ধান টিভি
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন
"
ব্রেকিং নিউজ
শিরোনাম
মাগুরা সদর হসপিটাল গেটের সাকুরা ফার্মেসি এবং আমিরুল ফার্মেসি থেকে এম্পুল ফেন্টানিল ইনজেকশন জব্দ মাগুরার মহম্মদপুরে মধুমতি নদীতে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ ফ্রান্সে নবী (সা) এর ব্যঙ্গ কার্টুন প্রদর্শনের প্রতিবাদে মাগুরায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ বিনোদপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মোঃ রিপন হোসেন মাগুরায় যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত বিহারী লাল শিকদার নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতার প্রস্তুতিমূলক সভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের দপ্তর সম্পাদক হলেন আজিজুল হক আজিজ মাগুরায় গড়াই নদীতে শেখ রাসেল নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত নড়াইলে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা 

মাগুরায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাড়িঘর, ভাঙচুর ও লুটপাট

  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৬১১ বার পড়া হয়েছে
ক্রাইম রিপোর্টার
রনি আহমেদ রাজু
মাগুরার শ্রীপুর থানাধীন ওয়াপদা বাজারে জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনি নির্মাণে বাধা দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাঝাইল গ্রামের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীদের ৫টি বাড়িঘর ভাংচুর করেছে একই দলের প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকজন।
ওয়াপদা বাজারের নিয়ন্ত্রণ নেয়াকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে উভয় গ্রুপের মাঝে বিরোধ চলে আসছিল এর সুত্র ধরে রোববার যাত্রী ছাউনির সুত্র ধরে অর্তকিত চেয়ারম্যানের লোক দিয়ে মাঝাইল গ্রামে হামলা চালিয়েছে।
যুবলীগ নেতা এনামুল ইসলাম অভিযোগ করেন, শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় নাকোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ন রশিদ মুহিতের লোকজন হামলা চালিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গোলাম সরোয়ার মুনসহ স্থানীয় যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বাড়ি ঘর ভাংচুর, নগদ টাকা, স্বর্ণাংকার লুট ও আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে।
যুবলীগকর্মী মুক্তাদুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নাকোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের নানা অপকর্ম প্রতিবাদ করার কারনেই এবং কেউ যাতে কুকর্মের ব্যাপারে মুখ না খোলে এজন্যই বাড়িঘরে ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। তার লোকজন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গোলাম সরওয়ার মুন, শ্রীপুর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ওহিদ শেখ, নাকোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হোসেন মন্ডল, নাকোল ইউনিয়ন যুবলীগের প্রচার সম্পাদক এনামুল সর্দার, নাকোল ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আল-আমীন শেখসহ একটি মক্তব ভাংচুর করে।
এ অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান মুহিত বলেন, সরকারী কাজে বাধা দেওয়ায় সাধারণ মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা করেছে।
ওয়াপদা বাজার কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম জানান, একটি যাত্রী ছাউনি নির্মাণের জন্য স্থান নির্ধারণ করা নিয়ে শনিবার বাজার কমিটির লোকজন প্রধান সড়ক থেকে বাজারের ভিতর যাতায়াতের জন্য ভ্যান প্রবেশের জন্য রাস্তা দাবি করেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুন্ডুর নিকট।
সোমবার সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টি বিবেচনার কথা ছিল। কিন্তু রোববারে কেন কিছু লোকজন নিজ দলীয় লোকজনের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটালো বুজতে পারলাম না।
শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী আহমেদ মাসুদ জানান, রোববার সকাল ১০টার দিকে মাগুরা-ঢাকা মহাসড়কের ওয়াপদা বাসষ্টান্ডে মাগুরা জেলা পরিষদ কর্তৃক যাত্রী ছাউনি নির্মাণের সময় দুটি পিলার জনস্বার্থে সরিয়ে করার দাবি করে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা। পরে স্থানীয় আওয়ামীলীগের লোকজন তাদেরকে ধাওয়া করে কয়েকটি বাড়ি ভাংচুর করেছে। পুলিশ মোতায়ন করার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
প্রকাশক কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত

Designed by: Nagorik It.Com